কলকাতার গুপ্ত কথা(ধারাবাহিক)

ঢাকেশ্বরীর ইতিকথা

প্রিয়াঙ্কা সিংহ: বল্লাল সেন রাজা হওয়ার পর নিজের জন্মস্থানকে মহিমান্বিত করার জন্য একটি মন্দির নির্মাণ করেন। কিংবদন্তী আছে তিনি একবার জঙ্গলে আচ্ছাদিত দেবতার স্বপ্ন দেখেছিলেন। তারপর সেই দেবতার সন্ধান পান এবং সেই স্থানে মন্দির নির্মাণ করেন।
যেহেতু মূর্তিটি তিনি আচ্ছাদিত বা ঢাকা অবস্থাতে পান, তাই এই মূর্তিটির নাম দেয়া হয় ঢাকেশ্বরী।
আমরা অনেকেই কুমারটুলি সর্বজনীন পুজো দেখতে যাই। কুমারটুলি সর্বজনীন পুজো থেকে বেরোনোর সময় একটা ছোট্ট গলি দেখতে পাই। ওই গলি দিয়ে আমরা অনেকে ধন্বন্তরি গঙ্গাপ্রসাদ সেনের বাড়ি দেখতে যাই। গলিতে ঢুকে ডানদিকের রাস্তা সেন বাড়ির দিকে বা গঙ্গার ঘাটের দিকে গেছে।আর বামদিকের রাস্তাতে একটা মন্দির দেখা যায়।মন্দিরটি তেমন আকর্ষণীয় নয়, তাই দর্শনে আগ্রহী হয় না কেউই।

একদিন মনে হল যাই, দেখি। মন্দিরের মূর্তি দেখার পর বাকরুদ্ধ হতে হল!
মন্দিরের পুরোহিতের কাছে গল্প শুনলাম এবং বাড়ি ফিরে কিছু বই থেকে পেলাম এই মূর্তির ইতিহাস।

এই ঢাকেশ্বরী ছিলেন বর্তমান বাংলাদেশের রাজধানী ঢাকার বিখ্যাত ঢাকেশ্বরী মন্দিরের অধিষ্ঠাত্রী দেবী। মূর্তিটি দেবী দুর্গারূপী ।
আনুমানিক মন্দিরটি দ্বাদশ শতাব্দীতে নির্মাণ করা হয়েছিল।
আবার প্রশ্ন হল এই মূর্তি সুদূর ঢাকা থেকে কলকাতায় এল কী করে! কীভাবে ঢাকেশ্বরী মন্দিরের মূর্তি কলকাতার কুমারটুলির দুর্গাচারণ স্ট্রিটের একটি মন্দিরে এল, যা কি না আনুমানিক ৮০০ বছর পুরোনো।

ইতিহাসের চাকা ঘুরিয়ে ফিরে যাওয়া যাক বল্লাল সেনের সময়কালে।
কথিত আছে, এই ঢাকেশ্বরী থেকে ঢাকা শহরের নাম দেওয়া হয়। আকবরের সেনাপতি মান সিংহ পরবর্তীকালে মন্দিরটি সংস্কার করেন এবং এক তেওয়ারী পরিবারকে সেবায়েত হিসাবে নিযুক্ত করেন। দেশভাগের সময় বিগ্রহটি বিশেষ বিমানে করে নিয়ে আসেন রাজকিশোর তেওয়ারী ও হরিপদ চক্রবর্তী।
কলকাতা নিয়ে আসার পর হরচন্দ্র মল্লিক স্ট্রিটে একটি গুদাম ঘরে রেখে পুজো করা হত। পরে ১৯৫০ নাগাদ তৎকালীন কলকাতার স্বনামধন্য ব্যবসায়ী দেবেন্দ্রনাথ চৌধুরী দেবীর মন্দির নির্মাণ করে দেন কুমারটুলী অঞ্চলে।
এখন আমরা যে ঢাকা ঢাকেশ্বরী মন্দিরে মূর্তি দেখতে পাই তা এই মূর্তির প্রতিরূপ। দেবী মূর্তিটি ব্রোঞ্জের, যার ওপর সোনার জলের প্রলেপখচিত। কলকাতার এই মন্দিরটি অনেক ইতিহাস নিয়ে আছে। অথচ কোনো সংস্কারের লক্ষণ চোখে পড়ে না।

(লেখিকার সঙ্গে যোগাযোগ করুন- priyanka.singha1811@gmail.com)

One thought on “কলকাতার গুপ্ত কথা(ধারাবাহিক)

  1. খুব তথ্য সমন্বিত। এরকম আরো লেখার অপেক্ষায় থাকলাম। আশা করি হতাশ করবেন না।

    Liked by 1 person

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s